মঈন-ফখরুদ্দিন সরকার জিয়া পরিবারের ওপর নির্যাতন শুরু করে- রিজভী

মঈন-ফখরুদ্দিন সরকার জিয়া পরিবারের ওপর নির্যাতন শুরু করে- রিজভী

বিএনএ, ঢাকা, ১২ আগস্ট ২০১৭:  নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচ তলায় শনিবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র উদ্যোগে সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠ পুত্র বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মরহুম আরাফাত রহমান কোকো’র ৪৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু এবং সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ। দোয়া মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক নান্নু, সেলিমুজ্জামান সেলিম, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সহ-সম্পাদক রওনাকুল ইসলাম টিপু, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক সিকদার, মাওলানা শাহ মো: নেছারুল হক, শামসুজ্জামান সুরুজ, অধ্যাপক আমিনুল ইসলামসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেন,  মঈনউদ্দিন-ফখরুদ্দিন এর অবৈধ সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই জিয়া পরিবারের ওপর নির্যাতনের ভয়াবহতা নেমে আসে। জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করার লক্ষ্যেই সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে মঈন-ফখরুদ্দিন সরকার বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বড় ছেলে ও বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান এবং বেগম জিয়ার কনিষ্ঠ পুত্র আরাফাত রহমান কোকোকে গ্রেফতার করে। জনাব তারেক রহমান এর ওপর চালানো হয় বর্বর নিপীড়ণ-নির্যাতন। আরাফাত রহমান কোকো’র ওপরও নির্যাতন চালানো হয়।বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র উদ্যোগে সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কনিষ্ঠ পুত্র বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক মরহুম আরাফাত রহমান কোকো’র ৪৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু এবং সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ। দোয়া মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক নান্নু, সেলিমুজ্জামান সেলিম, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সহ-সম্পাদক রওনাকুল ইসলাম টিপু, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক সিকদার, মাওলানা শাহ মো: নেছারুল হক, শামসুজ্জামান সুরুজ, অধ্যাপক আমিনুল ইসলামসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেন,
তিনি বলেন, মঈনউদ্দিন-ফখরুদ্দিন এর অবৈধ সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই জিয়া পরিবারের ওপর নির্যাতনের ভয়াবহতা নেমে আসে। জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করার লক্ষ্যেই সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে মঈন-ফখরুদ্দিন সরকার বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বড় ছেলে ও বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান এবং বেগম জিয়ার কনিষ্ঠ পুত্র আরাফাত রহমান কোকোকে গ্রেফতার করে। জনাব তারেক রহমান এর ওপর চালানো হয় বর্বর নিপীড়ণ-নির্যাতন। আরাফাত রহমান কোকো’র ওপরও নির্যাতন চালানো হয়।

Share