চবিতে তাপস হত্যা, বিচার দাবিতে মানব বন্ধন

চবিতে তাপস হত্যা, বিচার দাবিতে মানব বন্ধন

বিএনএ,চবি,১৪ ডিসেম্বর ২০১৭: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের  সংস্কৃত বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র তাপস সরকার হত্যার তিন বছর পেরিয়ে গেলেও বিচার পায়নি তার পরিবার।আসামীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও শোকর‌্যালি করেছে চবি ছাত্রলীগের একাংশ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বুদ্ধিজীবী চত্বরে শহীদ তাপস স্মৃতি সংসদের ব্যানারে মানববন্ধন করা হয়।

মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন, তাপস হত্যার তিন বছর পেরিয়ে গেলে ও আসামিদের কোন ধরনের বিচার হচ্ছেনা। তারা ছাত্রলীগের একজন কর্মীকে হত্যা করে ক্যাস্পাসে প্রকাশ্যে চলাফেরা করছে।

তারা অভিযোগ করেন যে, এবিষয়ে প্রশাসন কোন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করছেনা। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রাণালয় যদি খুনিদের বিচার না করতে পারে তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে ‘এসো শিক্ষার জন্য লাশ হয়ে ফিরো’ এই স্লোগান লেখা হোক। এছাড়া ও চার্জশিটভুক্ত প্রধান আসামি আশরাফুজ্জামান আশার ফাঁসিসহ অনান্য আসামিদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানান তারা।

এদিকে ৪ অক্টোবর তাপস হত্যার অভিযুক্ত প্রধান আসামি ভিএক্স গ্রুপের  ছাত্রলীগ নেতা আশা আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। আদালত তাকে জেলহাজাতে প্রেরণ করেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন হাসান উদ্দিন, পিয়াস সরকার ,দীপ্ত সিংহ, আমির সোহেল, আব্দুল্লাহ আল নাহিয়ান রাফি, নৃপেন সরকার ও হাফিজুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১৪ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী চত্বরে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংর্ঘষে নিহত হন সংস্কৃত বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র তাপস সরকার। ১৭ ডিসেম্বর তাপসের সহপাঠী হাফিজুল ইসলাম ৩০ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করেন। পরে মামলার তদন্তকারী দল চট্টগ্রাম পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন ২০১৬ সালের ২ মে আদালতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান আশাকে প্রধান আসামি করে ২৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেয়।

এম এ কাইয়ূম/এসজিএন

Share