কেএসআরএম মালিকের বিচার দাবি

কেএসআরএম মালিকের বিচার দাবি

বিএনএ, চট্টগ্রাম,১৫ মে ২০১৮: সাতকানিয়ার নলুয়ায় যাকাত ও ইফতার সামগ্রী বিতরণের সময় পদদলিত হয়ে ১০ জন নারী ও শিশু মৃত্যুর জন্য দায়ীদের বিচার ও শাস্তির দাবিতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী) চট্টগ্রাম জেলা শাখার উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকাল ৫ টায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

নিউমার্কেট চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলের জেলা সদস্য সচিব অপু দাশ গুপ্ত, শফি উদ্দিন কবির। নেতৃবৃন্দ বলেন, “যাকাত বিতরণের সময় পদদলিত হয়ে এত মানুষের প্রাণহানির স¤পূর্ণ দায় কেএসআরএম গ্রুপের মালিকপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনের। এটি নিছক দুর্ঘটনা নয়, অবহেলা জনিত হত্যাকান্ড। কয়েক দিন থেকেই কেএসআরএম গ্রুপ যাকাত প্রদান করা হবে মর্মে প্রচারণা চালায়। এ সংবাদ শুনে আগের রাত থেকেই আশেপাশের এলাকার গরীব মানুষ ¯হানীয় মাদ্রাসা মাঠে জড়ো হতে থাকে। মাঠের ধারণ ক্ষমতা ১০ হাজার হলেও সেখানে ২৫-৩০ হাজার মানুষ জমায়েত হয়। মাঠের ধারণ ক্ষমতার কয়েকগুণ মানুষ জমায়েত হওয়ায় যাকাত প্রদানের সময় যে কোন ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা ছিল। এছাড়া ঠিক একই ¯হানে ২০০৫ সালের ৭ অক্টোবর একই প্রতিষ্ঠানের যাকাত বিতরণের সময ৮ জন নারী নিহত হয়। সে ঘটনার বিচার হয়নি। পূর্বের ভয়াবহ অভিজ্ঞতাও এবারো অত্যধিক ভীড়ে অতীতের পুনরাবৃত্তির আশঙ্কা সত্বেও কেএসআরএম মালিক ও ¯হানীয় প্রশাসন যাকাত প্রদান ¯হগিত করেনি বা কোন ব্যব¯হা নেয়নি। বরং তারা গরীব মানুষের জীবন নিয়ে চরম অবহেলা ও দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছে। তারই ফলশ্রুতিতে এতগুলো মানুষের হতাহতের মত জঘন্য ও মর্ম¯পর্শী ঘটনা ঘটতে পারল। ১০ বছরে যাকাত নিতে গিয়ে যাকাত প্রদানকারী বিত্তবান গোষ্ঠী ও প্রশাসনের অবহেলায় প্রায় ২০০ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। কিন্তু প্রত্যেকটি ঘটনাতেই সরকার তদন্ত কমিটি করলেও, আজ পর্যন্ত কোন ঘটনারই বিচার ও দোষীদের শাস্তিহয়নি।

এসজিএন

Share