নায়িকাও নয় গায়িকাও নয় অন্য ফ্রেমে এরা খেলোয়াড়

নায়িকাও নয় গায়িকাও নয় অন্য ফ্রেমে এরা খেলোয়াড়

বিএনএ ,বিনোদন,১০ জুলাই  : সাধারণত বিনোদন ও ফ্যাশন দুনিয়ার তারকারাই থাকেন ফেমিনা ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ জুড়ে৷ যাঁদের গ্ল্যামারাস লুক আর পোশাক মুগ্ধ করে পাঠকদের৷ তবে এবার পাঠকদের জন্য রয়েছে এক নয়া চমক৷ হ্যাঁ, চেহারা ও পোশাক আগের মতোই পাঠকদকে আকর্ষণ করবে বইয়ের পাতাগুলো উলটে পালটে দেখতে৷

তবে যাঁরা প্রচ্ছদে রয়েছেন, তাঁদের পরিচয় একটু আলাদা৷ এক দেখায় নাও চিনতে পারেন৷ ভাল করে দেখুন তো চিনতে পারছেন কিনা! এঁদের একটু অন্যভাবেই দেখতে অভ্যস্ত ভারতীয়দের চোখ৷ মডেল বা অভিনেত্রী নন৷ এঁরা আসলে খেলার দুনিয়ায় সাড়া ফেলে দেওয়া ভারতীয় নক্ষত্র৷ আর তাঁদের নিয়েই এবারের প্রচ্ছদ তৈরি করেছে এই ফ্যাশন ম্যাগাজিন৷ তাঁরা সকলেই সোনার কন্যা৷ চলতি বছর কমনওয়েলথ গেমসে তাঁরা প্রত্যেকেই দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন৷ পুরুষতান্ত্রিক সমাজের চোখ রাঙানি উপেক্ষা করে নিজেদের সেরা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন৷ অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন৷ শুধু স্বপ্ন দেখেননি, কঠিন পরিশ্রমে তাঁকে বাস্তবায়িতও করেছেন৷  হয়ে উঠেছেন আগামী প্রজন্মের অনুপ্রেরণা৷ আর সেই মহিলা ক্রীড়াবিদদের জয়গানের গাঁথাই এবার ফুটে উঠতে চলেছে ফেমিনায়৷অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ ঘরে তুলে গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়েছিলেন মেরি কম৷ তারপর দেশের প্রথম মহিলা বক্সার হিসেবে কমনওয়েলথে সোনা জিতেছেন মণিপুরী মহিলা৷ একজন মা যে একজন সফল বক্সারও হতে পারেন, তা মেরি কমই প্রমাণ করে দিয়েছেন৷ তাই তিনি স্পেশ্যাল৷ স্পেশ্যাল এদেশের আরেক তারকা সাইনা নেহওয়ালও৷ অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জয়ের কীর্তি তো তাঁর ঝুলিতে রয়েইছে, সেই সঙ্গে এবারের কমনওয়েলথে সোনার পদকের মালকিনও হয়েছেন তিনি৷ এঁদের পাশাপাশি গোল্ড কোস্টে দেশকে সোনা এনে দিয়েছিলেন শুটার হিনা সিধু, শ্রেয়সী সিং এবং টেবল টেনিস তারকা মণিকা বাত্রা৷ আগামী ২৪ জুলাই প্রকাশিত হবে ফেমিনার এই এডিশনটি৷ আর সেখানেই জানা যাবে এই নামী তারকাদের অজানা কাহিনি৷  খবর : সংবাদ প্রতিদিনের।

সম্পাদনা: কেইউকে।

 

Share