শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন

ফরিদপুর অঞ্চলে শীতের আগমনী বার্তা, কদর বেড়েছে লেপ-তোষকের

faridpur ফরিদপুর

বিএনএ, ফরিদপুর: অক্টোবরের শেষ সপ্তাহ থেকেই ফরিদপুর অঞ্চলে আগমনী বার্তা ছড়াচ্ছে শীত। আর শীতের আগমনী বার্তায় কদর বেড়েছে লেপ তোষকের। অন্যান্য বছরের ন্যায় এ বছরও অনেকেই ছুটছেন লেপ তোষকের দোকানে। আর তাই ব্যাস্ত সময় পার করছেন ফরিদপুরের লেপ তোষকের কারিগরেরা।

ভোরের প্রকৃতিকে কুয়াশা চাদরে ঢেকে রাখার দৃশ্য আর জমে থাকা বিন্দু বিন্দু শিশিরই জানান দেয় দুয়ারে কড়া নাড়ছে শীত। ইট পাথরের শহরে মানুষকে স্পর্ষ করতে না পারলেও গ্রাম গঞ্জের মানুষেরা ঠিকই এরই মধ্যে অনুভব করছেন শীতের উপস্থিতি। তাইতো শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ার আগেই পরিবার পরিজনকে নিরাপদ রাখতে স্থানীয়রা ছুটছেন লেপ তোষকের দোকানে।

ভোরের কুয়াশা আর শিশিরের কবল থেকে রেহাই পেতে গ্রামের মানুষ এরই মধ্যে সকালে গরম বস্ত্র ব্যাবহার করছেন। বিশেষ যত্ন নেয়া হচ্ছে শিশুদের প্রতি।
প্রতিবছর শীত আসলেই বাড়ে লেপ তোষকের চাহিদা। এ চাহিদা মেটাতে কর্মচাঞ্চল্য বেড়েছে কারিগরদের মধ্যে। দিনরাত পরিশ্রম করে তৈরি করছেন লেপ তোষক। যদিও পরিশ্রম অনুযায়ী মজুরী না পাওয়ার কষ্টও রয়েছে তাদের মনে।
আর লেপ তোষক ক্রয় করতে আসা ক্রেতাদের অভিযোগ প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও বেড়েছে লেপ তোষকের মূল্য। তথাপিও প্রয়োজনের কারণে কিনতে বাধ্য হচ্ছেন তারা।

যদিও বিক্রেতাদের দাবী, লেপ তোষকের মূল্য খুব একটা বাড়েনি। এবছর ভালো মানের তুলা ও কাপড় দিয়ে তৈরি একটি লেপ ২৫শ থেকে ২৭শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর মাঝারি মানের লেপ ১২শ থেকে ১৫শ টাকায় বিত্রি হচ্ছে। আর ব্যাবসাও রয়েছে চাঙ্গা বলে দাবী তাদের। আর বেচা-কেনা বেশি হওয়ায় খুশি ব্যবসায়ীরা।

এদিকে কয়েক দিনের মধ্যেই শীতের তীব্রতা বাড়বে বলে জানালেন ফরিদপুর আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক সুশিল কুমার।
সাধারণত শীতের আমেজ নভেম্বরের মাঝামাঝি থেকে শুরু হয়ে থাকে ফেব্রুয়ারী মাস পর্যন্ত।

এসজিএন/আর করিম চৌধুরী


newssbna-ad
newssbna-ad
ওয়েব সাইটে প্রকাশিত কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও মতামত এর জন্য সম্পাদক কোন ভাবে দায়ী নন