বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন

ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর থমথমে নিউজিল্যান্ড

নিউজিল্যান্ড

নিউজ বিএনএ ডটকম,বিশ্ব ডেস্ক: ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর নিউজিল্যান্ডে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এধরণের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা দেশটিতে প্রথম এটি। পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত বাসিন্দাদের নিরাপদ অবস্থানে থাকার নির্দেশনা দিয়েছে প্রশাসন।

পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত দেশটির সব মসজিদ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে ক্রাইস্টচার্চের সব শিক্ষা ও কর্ম প্রতিষ্ঠান। দেশজুড়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে ।

হামলাকারী সবাই ধরা পরছে কিনা, তা নিশ্চিত না হওয়ায় নতুন হামলার আশঙ্কায় রয়েছেন নিউজিল্যান্ডবাসী। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত বিভিন্ন সরকারি ভবনে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।

এদিকে, ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় শোক ও নিন্দা জানিয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতা ও রাষ্ট্র প্রধানরা। মুসলিম বিশ্বের নেতারা অভিযোগ করেছেন, ইসলাম ভীতির কারণেই এই নৃশংস হামলা চালানো হয়েছে।এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্য ছাড়াও নিন্দার ঝড় উঠেছে পশ্চিমা দেশগুলোতেও। হামলার পর যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের ধর্মীয় স্থাপনাগুলোতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও টুইট বার্তায় বলেছেন, যেকোনো সন্ত্রাসী হামলার জন্যই বিশ্বের একশ ৩০ কোটি মুসলিমকে গণহারে দায়ী করা হয়। হামলার প্রতিবাদে করাচিতে বিক্ষোভও হয়েছে।

তুরস্ক বলছে, এই হামলার জন্য শুধু হামলাকারী নয়, বরং পশ্চিমা গণমাধ্যম আর রাজনীতিবিদদের ইসলামের প্রতি প্রতিনিয়ত ছড়িয়ে দেয়া ঘৃণাও এর জন্য দায়ী।

মিশরের হাজার বছরের পুরনো আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এই হামলা, ঘৃণাবাচক বক্তব্য, জেনোফোবিয়া এবং ইসলাম ভীতি ছড়ানোর ফল। নিন্দা জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নও।

শোক ও নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটির পার্লামেন্টে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়েছে।

এছাড়া, অস্ট্রেলিয়া, ফিজি, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও আফগানিস্তানসহ আন্তর্জাতিক মুসলিম সংগঠনগুলো নিন্দা জানিয়েছে।

আর করিম চৌধুরী/এস জি নবী


ট্যাগ:

newssbna-ad
newssbna-ad
ওয়েব সাইটে প্রকাশিত কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও মতামত এর জন্য সম্পাদক কোন ভাবে দায়ী নন