বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

হামলাকারীর কাছে বৈধ অস্ত্র ছিল


নিউজ বিএনএ ডটকম, বিশ্ব ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডে ক্রাইষ্টচার্চে দুইটি মসজিদে হামলা করা ব্যক্তির অস্ত্রের লাইসেন্স ছিল। শনিবার নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী  জাসিন্ডা আর্ডেন এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন।

উপ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন পিটার্স, বিরোধী দলের নেতা সাইমন ব্রিজেসসহ অন্যদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জাসিন্দা আর্ডেন।

প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডেন বলেন, এই হামলা ছিল একটি উগ্র-সন্ত্রাসবাদী হামলা এবং প্রধান সন্দেহভাজন হামলাকারীর আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স ছিল। ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে অস্ত্রের লাইসেন্স নেয় সে। যে কারণে তার গুলি কিনতে সমস্যা হয়নি।

জাসিন্ডা আর্ডেন হামলাকারীর পরিচয় জানিয়ে বলেন, হামলাকারীর নাম ব্রেন্টন টারান্ট (২৮)। সে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। দুই বছর ধরে নিউজিল্যান্ডের ডানিডিনে বসবাস করছেন। যদিও তার বসবাস ছিল বিক্ষিপ্ত।

জাসিন্ডা আর্ডেন আরও জানান, ওই ব্যক্তি ছাড়া আরও দুজন পুলিশের হেফাজতে আটক আছে । আটকদের কারো বিরুদ্ধে কোন অতীত অপরাধের রেকর্ড নেই।

এ ঘটনার পর নিউজিল্যান্ডের অস্ত্র আইনের ব্যাপক পরিবর্তন আনা হবে বলে জানিয়েছেন আরডার্ন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের সময় দুইটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হন ৪৯ জন। এসময় আহত হন ৪৮ জন। অল্পের জন্য রক্ষা পায় বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। যে মসজিদে হামলা চালানো হয়েছে সে মসজিদে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদেরও জুমার নামাজ আদায়ের কথা ছিল। রওয়ানা দিয়েও হামলার ঘটনা জানতে পারায় ফিরে আসেন ক্রিকেটাররা।

বিএনএ/ হাসান মুন্না।


ট্যাগ:

newssbna-ad
newssbna-ad
ওয়েব সাইটে প্রকাশিত কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও মতামত এর জন্য সম্পাদক কোন ভাবে দায়ী নন