শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রামের সর্ব বৃহৎ রেষ্টুরেন্ট আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকায়:01716430580

আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে ওঠছে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত

আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে ওঠছে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত

চট্টগ্রামের ঐতিহ্য পতেঙ্গা সমুদ্র  সৈকতকে ঘিরে শুরু হয়েছে পরিকল্পিত পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার কাজ। এরই মধ্যে বদলে গেছে অনেকখানি।আধুনিক ও বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে এই সৈকতের ৫ কিলোমিটার এলাকা।

কয়দিন আগেও যেখানে ছিল ঝুপড়ি দোকান পাট, বোল্ডার পাথর আর বিবর্ণ সৈকত, এখন সে এলাকা রূপময় হতে শুরু করেছে। অযত্ন অবহেলার ছাপ মুছে আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে চট্টগ্রামের প্রধান বিনোদন এলাকা পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত।নিজস্ব অর্থায়নে শহর রক্ষা বাঁধে সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ করছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ(সিডিএ)।

কর্ণফুলী নদীর সঙ্গে সাগরের মিলন স্থলে বিরল এই সৈকতে থাকবে বহুমুখী সুবিধা। দিনে ও রাতে এর রূপ হবে ভিন্ন ভিন্ন। এরইমধ্যে শহররক্ষা বাঁধে এই প্রকল্পের আকর্ষণীয় ও দৃষ্টিনন্দন সাজসজ্জা নজর কাড়ছে পর্যটকদের।

সাগরে সূর্যাস্তের  মোহনীয় দৃশ্য দেখতে ভিড় করছেন হাজারো পর্যটক। সন্ধ্যা গড়িয়ে গভীর রাত পর্যন্ত থাকছে মানুষের ভিড়।

সিডিএ’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কর্ণফুলী টানেল, আউটার রিং রোড, মেরিন ড্রাইভ, এক্সপ্রেসওয়েসহ নানা উন্নয়নের সঙ্গে সমন্বয় রেখেই দৃষ্টিনন্দন পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা ।

পরিকল্পনা অনুযায়ী পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত হবে বিশ্বমানের আধুনিক সুযোগ-সুবিধার পর্যটন কেন্দ্র। প্রায় এক হাজার প্রাইভেট কার ও ২শ’ বাস রাখার ব্যবস্থা করা হবে। শহর রক্ষা বাঁধ থেকে সাগর পর্যন্ত তিনটি ধাপে বসার এবং বিনোদনের জন্য থাকবে নানান আনন্দ আয়োজন। সাগরে নামার জন্য নির্দিষ্ট দূরত্বে সিঁড়ি থাকবে। সব বয়সী মানুষের বিনোদনের জন্য থাকবে বিভিন্ন ধরনের রাইড, লাইট হাউস, ক্যাবল কার, টয় ট্রেন, জেটি, ফুড কোর্ট, ফুটওভার ব্রিজ।

সেইসঙ্গে থিম পার্ক, ওয়াটার রাইড ফেরি’স হুইল, কনভেনশন হল, শপিং মল এবং পাঁচ তারকা মানের হোটেলও থাকবে। পর্যটকদের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও হবে আধুনিক মানের। পুরো পরিকল্পনা বাস্তায়ন হলে পতেঙ্গা হবে বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র।

আর করিম চৌধুরী/এস জি নবী


ট্যাগ: ,

newssbna-ad

The Village Restaurant And Party Centre Finlay house ,Ground floor (oposite CGO building 11) Agrabad C/A Or Call 0176588888

ওয়েব সাইটে প্রকাশিত কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও মতামত এর জন্য সম্পাদক কোন ভাবে দায়ী নন