শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রামের সর্ব বৃহৎ রেষ্টুরেন্ট আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকায়:01716430580

ভা্রতে বন্ডের মাধ্যমে কোটি রুপি নির্বাচনী চাঁদা আদায়


বিএনএ, বিশ্ব ডেস্ক : নয়া দিল্লী : নির্বাচন উপলক্ষে  রাজনৈতিক দলগুলো নির্বাচনী চাঁদা হিসেবে মার্চ ২০১৮ থেকে   ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখের মধ্যে ১০ লাখ থেকে ১ কোটি রুপি পর্যন্ত অর্থ গ্রহণ করেছে। তথ্য অধিকার আইনে একজন সামাজিক কর্মী এ তথ্য উদঘাটন করেছেন। 

বন্ড আকারে এ চাঁদাগুলো দেওয়া হয়। চাঁদা দাতারা প্রায় ১৪০৭.০৯ কোটি রুপির বন্ড কিনেছেন। এতে সর্বোচ্চ ছিল ১৪০৩.৯০ কোটি রুপী। ইন্ডিয়া স্টেট ব্যাংক থেকে চন্দ্রশেখর গাউদ এ তথ্য সংগ্রহ করেন। -পিটিআই।

সুপ্রিম কোর্ট গেল সপ্তাহে রুল জারি করে বলেছে,নির্বাচনের মাঝমাঝি সময়ে  ইলেক্ট্রারাল বন্ড বন্ধ হবে না। অন্তবর্তীকালীন এক আদেশে সুপ্রিম কোর্ট  বলেছে সমস্ত রাজনৈতিক দলসমূহকে তাদের কাছে সঞ্চিত বন্ডগুলোর  অর্থের পরিমাণের তালিকা ৩০ মের মধ্যে নির্বাচন কমিশনারকে সীল যুক্ত খাম ভরে যাতে অবহিত করা হয়।

এ তথ্যসমূহ নির্বাচন কমিশনারের  সেফ কাস্টডিতে রাখা হবে। চাঁদা দাতারা ১৪৫৯টি ইলেকট্রোরাল বন্ড কিনেছেন ১০ লাখ রুপি দিয়ে, ১২৫৮ বন্ড কিনেছেন ১ কোটি রুপি দিয়ে। ৩১৮টি বন্ড কিনেছেন তারা ১ লাখ রুপি মূল্যের। ১২টি বন্ড কিনেছেন ১০ হাজার ২৪টি বন্ড কিনেছেন ১০০০ রুপি মূল্যের।

তথ্যগুলো জানিয়েছে আরটিআই। রাজনৈতিক দলগুলোর  অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৩৯৫.৮৯ কোটি রুপি। কতটি দল এ বন্ডগুলো তুলবে তার কোন হিসেব নেই ব্যাংকের কাছে। গাউদ এ কথা জানিয়েছেন।

ইলেক্ট্রোরাল বডগুলো ৫টি পদ্ধতিতে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া  বিক্রি করে।  বন্ডগুলো ছিল  ১০০০, ১০ হাজার ১ লাখ ১০ লাখ ও ১ কোটি রুপি মূল্যের।

নির্বাচনী নজরদারির জন্য অলাভজনক এসোসিয়েশন ফর ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস নির্বাচনী বন্ড বিক্রির জন্য 
সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করেছিল। যাতে রাজনৈতিক ফান্ডগুলো স্বচ্ছতার মধ্যে দিয়ে আহরিত হয়ে থাকে।
২০১৭ সালে নির্বাচন কমিশনের দায়ের করা আর্জির জবাবে আদালত এ রায় দেন। 

সম্পাদনায় : আবির হাসান।    

 

 

 



newssbna-ad

The Village Restaurant And Party Centre Finlay house ,Ground floor (oposite CGO building 11) Agrabad C/A Or Call 0176588888

ওয়েব সাইটে প্রকাশিত কোন প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও মতামত এর জন্য সম্পাদক কোন ভাবে দায়ী নন